মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৯:৩২ অপরাহ্ন

হরিণের চামড়া রেখে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গিয়ে নিজেরাই ফেঁসে গেলেন

বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশ : শনিবার, ৩ জুলাই, ২০২১
  • ৮২

শরণখোলায় প্রতিপক্ষের বাড়িতে হরিণের চামড়া রেখে ফাঁসাতে গিয়ে নিজেরাই ফেঁসে গেলেন। র‌্যাব-৬ এর অভিযানে মূল রহস্য বেরিয়ে পড়লে সংবাদদাতারাই দুইটি হরিণের চামড়াসহ আটক হন। শনিবার ভোর রাত ৪ টার দিকে উপজেলার সোনাতলা গ্রাম থেকে তাদের আটক করা হয়।
আটককৃতরা হচ্ছে, সোনাতলা গ্রামের আমির মল্লিকের পুত্র জাকির মল্লিক (৪৫), জাকির মল্লিকের পুত্র ওমর সানি (১৯), রসুলপুর গ্রামের আমির পাহলানের পুত্র হাফিজুল (৩৫) ও নুরুল হক ফরাজির পুত্র মাসুম ফরাজি (৩০)।
এলাকাবাসী জানায়, আটক জাকির মল্লিকের সাথে পাশ্ববর্তী গ্রামের মোশারেফ ফকিরের বিরোধ চলে আসছে। এমনকি উভয়ের মধ্যে আদালতে মামলা চলমান। এ অবস্থায় মোশারেফ ফকিরকে ফাঁসাতে তার বাড়িতে দুই হরিণের চামড়া রেখে র‌্যাবকে খবর দেয় জাকির মল্লিক। খবর পেয়ে র‌্যাবের একটি দল শনিবার ভোররাতে খবরদাতাদের সাথে নিয়ে ওই গ্রামে অভিযান চালিয়ে মোশারেফ ফকিরের বাড়ির সামনে থেকে চামড়া দুটি উদ্ধার করে। এক পর্যায়ে র‌্যাব সদস্যদের সন্দেহ হয় মোশারেফকে ফাঁসাতে হরিণের চামড়া তার বাড়িতে রেখে আসছে প্রতিপক্ষরা। এসময় র‌্যাব এ ঘটনার সাথে জরিত ওই চার ব্যক্তিকে আটক করে নিয়ে যায়।
এ ব্যপারে র‌্যাব-৬ এর একটি প্রেস বিঞ্জপ্তিতে জানানো হয় তারা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে সোনাতলা গ্রামের বেড়ি বাঁধের উপর ক্রয়-বিক্রয়ের সময় দুইটি হরিণের চামড়াসহ ওই চারজনকে আটক করা হয়। এব্যপারে শরণখোলা থানায় ১৯২৭ সালের বন আইন (সংশোধিত ২০০০) এবং বণ্যপ্রানি (সংরক্ষন ও নিরপত্তা) আইন ২০১২ মামলা দেয়া হবে।

Share This Post

আরও পড়ুন