মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৯:৫৪ অপরাহ্ন

স্বাধীনতার পরাধীনতার শিকলে বন্দী নারী

শহীদ আফ্রিদি
  • প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০
  • ৩৭১

আমি নারীবাদী নই তবে নারীর বুকেচাঁপা কথাগুলো কাছথেকে শুনেছি ৩ বছর একটি NGO তে কাজ করার সুবাদে। দীর্ঘদিন চলার পথে আজও তার প্রতিধ্বনি শুনতে পাই।নারী হাজারো প্রতিকূলতায় সবকিছু নিরবে সয্য করে নিজেকে মানিয়ে চলে।নারী শুধু স্বামীর কাছে পরাজিত নয়, পরাজিত হয় তার বাবা,ভাই,চাচা,মামা,এমনকি পরিবারের আরেক নারী নিজের মায়ের কাছে।মায়ের কাছে পরাজিত হওয়ার আবার আরএকটা কারন আছে সেটা হলো সেই মা-ই ঐ পরিবারের বাবাসহ সকল পুরুষের করাত্তে থাকে।অথবা পরিবারের পুরুষ গুলোর মুখরক্ষার্থে বা পুরুষ গুলোর অশান্তি থেকে বাঁচতে। ধরেন চাকরি, ব্যবসা,লেখা-পড়া,এমনকি বিয়ের ব্যাপারটাতে নারী তাহার একটু পরিমাণ মতামত প্রকাশ করাতো দুরের কথা উঁ শব্দটুকু করতে পারেনা।শুধু কি তাই নিজের ভাল-মন্দ যাচাই বাছাই করতে পর্যন্ত পারেনা!ছেলের ক্ষেত্রে পরিবারের সবাই জিজ্ঞেস করে মেয়ে পছন্দ কিনা?বা কোন ধরনের পরিবার অথবা কোন ক্যাটাগরির মেয়ে পছন্দ? আর তারই বিপরীত চিত্র মেয়ের ক্ষেত্রে। পরিবারের পুরুষরা বলে ছেলে আমরা দেখেছি আমাদের বুজে খাটে খেয়ে -পরে জীবন কাটাতে পরবে!!খেয়ে-পরে জীবন কাটানোই যে সব নয় তা কেউ বুজতে চায়না বা বুজার চেষ্টা করেনা!
অবোলা নারী আজও পুরুষ শাসিত সমাজে পুরুষদের আগ্গাবহ দাসে পরিনত হয়ে আছে।পরিবারের পুরুষের মর্জি রক্ষার্থে নিরব দর্শকের ন্যায় মাথাটা ডানে-বামে হেলিয়ে-ই খান্ত থাকে।”পৃথিবীতে যা চির কল্যান কর অর্ধেক তার করিয়াছে নারী, বাকী অর্ধেক তার নর”নজরুলের এই কথাগুলো শুধু পড়ার জন্য আর সার্টিফিকেট অর্জনের জন্যেই পড়ে থাকা হয়।বাস্তব জীবনে কাজে লাগাতে বা পার্থীব জীবনে কোন কাজেই লাগাইনা আমরা পুরুষরা!!
হায়রে নারী বিদাতা তোমাদের আজও মুক্তগগনে মুক্ত নিশ্বাস নিতে দিলোনা!,শুধু -ই পুরুষের ভোগ্যপন্য বা মনোরঞ্জনের বস্তুতেই পরিনত হয়েই আছো!!

Share This Post

আরও পড়ুন