মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ১১:১৬ অপরাহ্ন

শেরপুরে পৃথক বজ্রপাতের ঘটনায় নিহত-২, আহত-২

শেরপুর প্রতিনিধি
  • প্রকাশ : সোমবার, ১৩ জুলাই, ২০২০
  • ২৫২

শেরপুর জেলার সদর উপজেলার পাকুড়িয়া ইউনিয়নের তারাগড় গাংপাড় গ্রামে ও ভাতশালা ইউনিয়নের কুঠুরাকান্দা গ্রামে ১৩ জুলাই সোমবার দুপুর আড়াইটার দিকে আকর্ষিক বজ্রপাতে রহিলা বেগম (৫০) ও নবীন মিয়া (১৭) নামে এক কলেজ শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন।

নিহত রহিমা বেগম সদর উপজেলার পাকুড়িয়া ইউনিয়নের গাংপাড় গ্রামের জনৈক আতশ আলীর স্ত্রী ও নিহত কলেজ শিক্ষার্থী নবীন মিয়া ভাতশালা ইউনিয়নের কুঠুরাকান্দা গ্রামের ভেরু মন্ডলের নাতি ও সোহেল রানার ছেলে এবং সে শেরপুর বিজ্ঞান কলেজের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিল।

এছাড়াও আহতরা হলেন- পাকুড়িয়া গাংপাড় গ্রামের শফতুল্লার স্ত্রী আকলিমা বেগম (৫৫) ও একই গ্রামের আঃ আজিজ এর স্ত্রী মোছাঃ বেগম (৪৫)।

এদিকে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সোমবার দুপুরে পাকুড়িয়া ইউনিয়নের গাংপাড় গ্রামের আতশ আলীর স্ত্রী মোছাঃ রহিমা বেগম বৃষ্টির সময় তার বসতবাড়ীর উঠানে গৃহস্থালীর কাজ করছিলেন। এসময় বৃষ্টির এক পর্যায় আকর্ষিক বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই রহিমা বেগম মারা যান। এছাড়াও আহত হয় আকলিম বেগম ও মোছাঃ বেগম। বজ্রপাতের ঘটনায় নিহত ও আহতদের বিষয়টি পাকুড়িয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ হায়দার আলী নিশ্চিত করেছেন।

অপরদিকে একই দিন সদর উপজেলার ভাতশালা ইউনিয়নের কুঠুরাকান্দা গ্রামের ভেরু মন্ডলের নাতি ও সোহেল রানার ছেলে এবং শেরপুর বিজ্ঞান কলেজের ২য় বর্ষে পড়ুয়া শিক্ষার্থী নবীন মিয়া সোমবার দুপুরে বাড়ীর পার্শ্বের একটি মাঠে অন্যান্য সাথীদের নিয়ে ফুটবল খেলছিল। এসময় আকর্ষিক এক বজ্রপাতে নবীন মিয়া ঘটনাস্থলেই মারা যায়। পৃথক বজ্রপাতের ঘটনায় নিহতদের পরিবারের মাঝে এক শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Share This Post

আরও পড়ুন