বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:২৯ পূর্বাহ্ন

ব্যারিস্টার মীর হেলালকে কারাগারে প্রেরণ- উত্তর ও দক্ষিন মাদার্শা ইউনিয়ন বিএনপি’র নিন্দা ও প্রতিবাদ

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ
  • প্রকাশ : বুধবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২০
  • ৩৬৭

বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মীর হেলালকে কারাগারে প্রেরণের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে হাটহাজারী উপজেলার দক্ষিন মাদার্শা,উত্তর মাদার্শার বি.ন.পি ও অংগ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা।এক বিবৃতিতে সংগঠনের পক্ষে বলা হয়, প্রতিনিয়ত দেশে নারী ও শিশু ধর্ষণ, গুম খুন এই ফ্যাসিবাদী সরকার অব্যাহত রেখেছে। দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে ব্যারিস্টার মীর হেলালকে কারাগারে প্রেরণের ঘটনায় প্রমাণিত হয় এটি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত
এ সময় এক বিবৃতিতে উত্তর মাদার্শা ইউনিয়ন বি এন পির সভাপতি নুরুল আলম মফিজ,সহঃসভাপতি মোঃশফি,সহঃসভাপতি শফিকুল ইসলাম টিটু,সাধারন সম্পাদক কাজী আকতার হোসেন বাদল,সিঃযুগ্ন সম্পাদক আনোয়ার চৌঃ,সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম ও ১৩নং দক্ষিন মাদার্শা ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি কামাল উদ্দীন,সিঃসহঃ সভাপতি মূছা খালেদ,সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ ফোরকান,জেলা যুবদল নেতা ফখরুল হাসান,যুবদল সভাপতি মোঃবখতেয়ার,সাধারন সম্পাদক মোঃ মহিউদ্দীন,ছাত্রদল সভাপতি মহিউদ্দীন ফারুক,সাধারন সম্পাদক মোঃ মারুফ,থানা ছাত্র দলের সিঃযুগ্ন আহবায়ক মোঃনূরউদ্দীন,যৌথ বিবৃতিতে বলেন, আওয়ামী সরকার বাংলাদেশকে এক অরাজকতার দেশে পরিনত করেছে।প্রতিটা দিন সরকারী দলের নেতাকর্মীদের হাতে খুন, গুম,ধর্ষন অব্যহত থাকার পরও সরকার তাদের আইনের আওতায় না এনে বিরোধী দলের নেতা কর্মীদের মিথ্যা ভিত্তিহীন মামলা দিয়ে নিজেদের অবৈধ ক্ষমতা ধরে রাখতে চাই।সরকার দেশ চালাতে ব্যার্থ হয়ে একের পর এক নাটকিয় ঘটনার জম্ম দিয়ে দেশের মানুষের কাছে ব্যার্থহীন অবৈধ সরকার হিসেবে ক্ষমতা দখল করে বিএনপি’র নেতাকর্মীদের খুন,গুম,হামলা,মামলা দিয়ে ঠিকে আছে।
সরকারের আপাদমস্তক দূর্নীতিতে নিমর্জ্জিত।সরকার নিজ দলের মন্ত্রী,এমপিদের অপকর্ম ডাকাতে ব্যারিষ্টার মীর হেলালের মতো জনবান্ধব নেতাকে মিথ্যা ভিত্তিহীন মামলা দিয়ে কারাগারে প্রেরন করে।

বিবৃতিতে বিএনপি নেতারা ব্যারিষ্টার মীর হেলাল কে নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানান।
অন্যথায় হাটহাজারীর আপামর জনতা কে সাথে নিয়ে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলে আন্দোলনের মাধ্যমে এ সরকারের ফ্যাসিবাদী কারাগার থেকে ব্যারিষ্টার মীর হেলালকে মুক্ত করে আনতে হবে।

Share This Post

আরও পড়ুন