সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:০৯ পূর্বাহ্ন

বরুড়ায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা

কুমিল্লা প্রতিনিধি
  • প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২০
  • ১৬০

কুমিল্লায় বরুড়ায় জহিরুল ইসলাম (৩৫) নামে এক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা।
বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) দুপুর ২টার দিকে উপজেলার শিলমুড়ী উত্তর ইউনিয়নের জীবনপুর গ্রামের হাসেম মার্কেটে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।
জহিরুল বরুড়া পৌর এলাকার জিনসার গ্রামের আবদুল মালেকের ছেলে। তিনি পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদে ছিলেন বলে দলীয় সূত্র জানিয়েছে।

এদিকে, হত্যাকাণ্ডের সময় জহিরুল সঙ্গে থাকা জিনসার গ্রামের সাহেব আলীর ছেলে রানাকেও পিটিয়ে গুরুত্বর আহত করেছে সন্ত্রাসীরা। তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

পলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা জহিরুল ইসলাম সৌদি আরব প্রবাসী। গত প্রায় এক বছর আগে তিনি ছুটিতে দেশে আসেন। এরপর করোনার কারণে আর যেতে পারেননি। তার ৮ বছর বয়সী একটি ছেলে রয়েছে। গত কয়েক বছর আগে স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়েছে জহিরুলের। বৃহস্পতিবার দুপুরে জীবনপুর গ্রামের সম্পত্তি সংক্রান্ত একটি বিরোধ মিটাতে সেখানে যান জহিরুল ইসলামসহ কয়েকজন। পরে তারা হাসেম মার্কেটের ছানাউল্লাহর চা দোকানে বসেন। এ সময় কয়েকজন সন্ত্রাসী দা, ছেনিসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে এসে তাদেরকে এলোপাতাড়ি কোপাতে এবং পেটাতে থাকে। এতে জহিরুল ইসলামের মাথায়সহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে কোপ পড়ে। পরে স্থানীয়রা জহিরুল ইসলাম ও রানাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জহিরুলকে মৃত ঘোষণা করেন।

বরুড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) নাহিদ আহমেদ বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হচ্ছে। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, সম্পত্তি সংক্রান্ত বিরোধ মেটাতে গিয়ে তিনি নিহত হয়েছেন। তবে এটি কোন রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড নয়। এ ঘটনায় থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। আমরা তদন্ত সাপেক্ষে এ ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।

Share This Post

আরও পড়ুন