বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ০৫:২৯ পূর্বাহ্ন

ফেসবুকার গ্রুপ অব ঢাকার পক্ষ থেকে মাসব্যাপী ফ্রী মাস্ক বিতরণ শুরু –

বিশেষ প্রতিবেদক | মোহাম্মদ অলিদ সিদ্দিকী তালুকদার
  • প্রকাশ : সোমবার, ১৭ আগস্ট, ২০২০
  • ২৮৩

 

শিশুরা বড়দের চেয়ে বেশি অন্যদের করোনাভাইরাসে সংক্রমিত করতে পারে। তাই এখনই স্কুল খুলে দিলে পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ রুপ নিতে পারে। আমেরিকা ও ইটালির দুটি গবেষণার ফলাফলে দাবি করা হয়েছে, SARS_ COV-2 বিস্তারে বড়দের চেয়েও শিশুরা বেশি কার্যকর। কারণ ছোটরা হতে পারে ভাইরাস বহনের প্রধান চালক। SARS_COV2 সংক্রমিত শিশুরা আর ছোট্ট তরুণদের মধ্যে থাকে উচ্চ মাত্রার ভাইরাস।
আমেরিকার একটি গবেষণায় পরীক্ষা করা হলো ভাইরাসের মাত্রা শিশু আর পূর্ণ বয়স্কদের নাসা গলবিল এ NASOPHARYNX.! গলার উপরের যে অংশ নাসাপথের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করে তাই হলো ন্যাজো ফেরিনক্স বা নাসা গলবিল। ফলাফলে দেখা গেল, পাঁচ বছরের কম বয়সের শিশু – যাদের মৃদু থেকে মাঝারি উপসর্গ হয়ছিল – এদের নাসা গলবিল এ SARS- COV2 মাত্রা ১০ থেকে ১০০ গুণ বেশি বড় শিশু আর পূর্ণ বয়স্কদের তুলনায়। উপরোক্ত কথাগুলো বলেন মাদকমুক্ত বাংলাদেশ চাই আন্দোলন ফেসবুকের গ্রুপ অফ ঢাকা এর চেয়ারম্যান রাফিন সাদ বোরহান।

ঢাকার বিভিন্ন স্থানে প্রতিদিন প্রায় দুই থেকে তিন হাজার লোককে ফ্রী মাস্ক বিতরণ করে যাচ্ছে এই সংগঠন রাফিন সাদ এর নেতৃত্বে। সংগঠন এর মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে করোনাভাইরাস নিয়ে মানুষ যখন অসচেতনতা ভাবে চলাচল করছে তখন তাদেরকে সচেতন করতে এবং ঘরের বাইরে মাস্ক পড়তে সকলকে উৎসাহিত করতে মাঠে নেমে কাজ করছে ঢাকার জনপ্রিয় এই সংগঠন ফেসবুকার গ্রুপ অফ ঢাকা।

রাফিন সাদ আরও বলেন মহামারির এই সময়ে স্কুল বন্ধ থাকায় শিশু শ্রম বাড়ার প্রমাণ ধারাবাহিকভাবে আসছে। বিশ্বের ১৩০টির বেশি দেশে স্কুল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বর্তমানে ১০০ কোটিরও বেশি শিক্ষার্থী ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। এমনকি যখন আবার ক্লাস শুরু হবে তখন অনেক বাবা-মায়ের হয়তো তাদের সন্তানকে স্কুলে দেওয়ার সক্ষমতা হারাবেন। ফলে আরও অনেক শিশু বঞ্চনামূলক ও ঝুঁকিপূর্ণ কাজে যোগ দিতে বাধ্য হবে।
একটি প্রতিবেদনে শিশু শ্রম বৃদ্ধির ঝুঁকি মোকাবিলায় বেশ কয়েকটি পদক্ষেপের সুপারিশ করা হয়েছে। সেগুলোর মধ্যে অধিকতর সমন্বিত সামাজিক সুরক্ষা, দরিদ্র পরিবারের জন্য সহজে ঋণ পাওয়ার সুযোগ, বড়দের মানসম্মত কাজের সুযোগ বৃদ্ধি, স্কুলের বেতন বাতিলসহ শিশুদের স্কুলে ফেরা নিশ্চিত করতে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ, শ্রম পরিদর্শন ও আইন প্রয়োগে সক্ষমতা বৃদ্ধির বিষয়গুলোও রয়েছে।

Share This Post

আরও পড়ুন