বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৪০ অপরাহ্ন

গোবিন্দগঞ্জে ব্যবসায়ী কে পিটিয়ে হত্যা।।গ্রেফতার-১

গাইবান্ধা প্রতিনিধি
  • প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১২ আগস্ট, ২০২১
  • ৩৪

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে দরবস্ত ইউনিয়নের কোমরপুর কানিপাড়া গ্রামে টর্চ লাইট মারাকে কেন্দ্র করে মেজবাউল করিম (৫৫)ওরফে বাউল নামে এক ব্যাক্তিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রতক্ষ্যদর্শী ও গোবিন্দগঞ্জ থানার এজাহার সূত্রে জানা যায়,গেছে বুধবার রাত আনুমানিক ১০ঘটিকার দিকে
দরবস্ত ইউনিয়নের কোমরপুর কানিপাড়া গ্রামের
মেজবাউল ওরফে বাউল(৫৫)এর ছেলে মোমিনুল(২৫) শ্বশুর বাড়ী থেকে পাঁয়ে হেঁটে আসার পথে দরবস্ত মধ্য পাড়া গ্রামের কথিত ভন্ড দরবেশ আব্দুর রশিদের বাড়ীর খুলিতে মানুষজনের গোল জটলা দেখে মোবাইলের টর্চ লাইট জ্বালিয়ে তাদের দিকে ধরলে গাঁজা ইয়াবা সেবনকারীদের মুখে আলো পড়ে।এতে গাঁজা ইয়াবা সেবনকারীরা ক্ষিপ্ত হয়ে মোমিনুলকে মারপিট করে মোবাইল কেড়ে নিয়ে স্থানীয় একটি ক্লাবে আটকে রাখে। এ খবর পেয়ে তার মোমিনুলের বড় ভাই ময়নুল ইসলাম(বাবু)এগিয়ে গেলে তাকেও মারপিট করে। দুই ছেলেকে ক্লাবে আটকে রেখে মারপিটের খবর পেয়ে বাবা মেজবাউল উদ্ধারের জন্য এগিয়ে ক্লাবের দিকে গেলে ক্লাবের সদস্যদের কাছে ছেলের টর্চ লাইটে আলো জ্বালানো ভুল হয়েছে শ্বিকার করে ক্ষমা চাইলে গাঁজারে আসরে থাকা একই গ্রামের শাহীনের ছেলে স্থানীয় একটি অংশ দেয়া স্থানীয় মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরী কাম,নাইট গার্ড সৌমিক ওরফে সৌমি ও আল আমিনসহ মাদক সেবনকারীরা এলোপাথারী ভাবে ব্যবসায়ী মেজবাউলকে মারপিট করলে সে অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে যায়।এ অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষনা করে। এখবর পেয়ে সকালে গোবিন্দগঞ্জ থানার এস,আই সাজুর এএস আই আসাদুল ইসলামের নেতৃত্বে সংঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স ঘটনাস্থল তদন্ত পূর্বক নিহত’র লাশ উদ্ধার করে। এহত্যাকান্ডে জড়িত সৌমিকসহ অন্যান্য জড়িতদের নাম উল্লেখ করে নিহত’র পরিবার গোবিন্দগঞ্জ থানায় এজাহার দায়ের করে। এবিষয়ে গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ(তদন্ত)তাজুল ইসলাম বলেন, এঘটনায় আলমগীর কবির(রতন)মন্ডল নামে একজনকে আটক করে নিহত’র মরদেহ উদ্ধার করে গাইবান্ধা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।এ হত্যাকান্ডে জড়িত অন্যান্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Share This Post

আরও পড়ুন