সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:০৪ পূর্বাহ্ন

গুইমারাতে সেনাবাহিনীর অভিযানে অস্ত্রসহ আটক-৪

পার্বত্য জেলা প্রতিনিধি
  • প্রকাশ : শুক্রবার, ৯ জুলাই, ২০২১
  • ৪৪

খাগড়াছড়ির গুইমারায় সেনাবাহিনী বিশেষ অভিযান চালিয়ে দেশীয় তৈরি দুটি এলজি, পাচঁটি চাঁদা আদায়ের রশিদ বই ,ছয়টি মোবাইল সেট,নগদ তিনহাজার সাতশত পঞ্চাশ টাকা সহ ৪ জন ইউপিডিএফ (মূল) দলের সদস্যকে আটক করেছে।
আটককৃতরা হলেন মানিকছড়ি গচ্ছাবিল মুরাদংপাড়া এলাকার বাগড়া কুমার চাকমার ছেলে দুর্জয় চাকমা(৩২) ,মানিকছড়ি রেম্রাপাড়া এলাকার থোঅংগ্য মারমার ছেলে অংথই মারমা(২৩) এবং একই এলাকার মৃত সাথোয়াই মার্মা ছেলে কংচাই মার্মা(১৮),লাব্রেসাই মার্মার ছেলে চাইহলা মার্মা(২০)।
সেনাসূত্র জানান বৃহস্পতি বার(৯ জুলাই) রাত দুইটার দিকে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে হাফছড়ির বড়পিলাক এলাকার ছনখোলা পাড়া গরুর দোকানের সামনে রাস্তার উপর থেকে সেনাবাহিনীর তিন ফিল্ড রেজিমেন্ট আর্টিলারী সিন্দুকছড়ি জোনের উপ-অধিনায়ক মেজর মো: এমরান হোসেনের নেতৃত্বে সেনাবাহিনীর একটি টহল দল বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে দেশীয় তৈরি দুটি এলজি, পাচঁটি চাঁদা আদায়ের রশিদ বই ,ছয়টি মোবাইল সেট,নগদ তিনহাজার সাতশত পঞ্চাশ টাকাসহ এ চারজনকে আটক করে। পরে উদ্ধারকৃত অস্ত্রসহ আটকৃতদের গুইমারা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। অভিযানের সময় সন্ত্রাসীরা সেনাবাহিনীর উপর ১ রাউন্ড গুলি করেছিল বলে সেনাসূত্রের দাবী।
গুইমারা থানার ওসি মো: মিজানুর রহমান জানান ,সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে যৌথবাহিনীর সদস্যরা গোপন তথ্যের ভিত্তিতে অস্ত্রসহ চারজনকে আটক করেছে। অবৈধ অস্ত্র রাখার অপরাধে, অস্ত্র আইনে গুইমারা থানায় মামলা হয়েছে যার নং ০২ তারিখ ০৯/০৭/২০২১ইং। আটককৃতদের খাগড়াছড়ি আদালতে প্রেরন করা হয়েছে। উল্লেখ্য যে আটক দুর্জয় চাকমার নামে রামগড় থানায় হত্যা ও অস্ত্র মামলা রয়েছে।এসব মামলায় দুর্জয় চাকমা পলাতক ছিল।

Share This Post

আরও পড়ুন