রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ০৫:২১ অপরাহ্ন

কক্সবাজার সদর আ’লীগের উপপ্রচার সম্পাদকের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

কক্সবাজার প্রতিনিধি
  • প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই, ২০২১
  • ২৫

কক্সবাজার সদর উপজেলা আ’লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক মোঃ শরীফের বিরুদ্ধে মিথ্যে মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছে কক্সবাজার সদর উপজেলা আ’লীগ।

১২ জুলাই রোববার বিকেলে ঈদগাঁও পাবলিক লাইব্রেরী মিলনায়তনে ওই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের পক্ষে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সদর উপজেলা আ’লীগ সাধারন সম্পাদক মাহমুদুল করিম মাদু।

তিনি তাঁর বক্তব্যে জানান, কক্সবাজার সদর উপজেলাধীন ইসলামপুর ইউনিয়নের কুখ্যাত অস্ত্র ব্যবসায়ী এবং অস্ত্র মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী এবং একই ইউনিয়নের উত্তর নাপিতখালী এলাকার বাসিন্দা ফরিদুল ইসলামের পুত্র সাহেদুল করিম দীর্ঘদিন ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের এবং ফেকইসহ মিলিয়ে মোট ১৬টি আইডির মাধ্যমে কক্সবাজার সদর উপজেলা আ’লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক মোঃ শরীফ ও বর্তমান সরকারের বিভিন্ন কর্মকান্ডকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে নানাভাবে অপপ্রচার চালিয়ে আসছে।

তারই ধারবাহিকতায় ইসলামপুরের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বিশিষ্ট সমাজসেবক কক্সবাজার সদর উপজেলা আ’লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক মোঃ শরীফের বিরুদ্ধে গত ৮ জুলাই তাঁর পিতা ফরিদুল ইসলামকে দিয়ে ঈদগাঁও থানায় একটি ষড়যন্ত্রমুলক মিথ্যে মামলা রজু করিয়েছে।

বাংলাদেশ আ’লীগ কক্সবাজার সদর উপজেলা শাখা মোঃ শরীফকে উক্ত ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যে মামলায় আসামী করার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং সংশ্লিষ্ঠ প্রশাসনের প্রতি অবিলম্বে হয়রানিমুলক এ মিথ্যে মামলা প্রত্যাহারের অনুরোধ জানান তিনি।

তিনি তাঁর বক্তব্যে দাবী করেন জনৈক শাহেদ একজন টাউট এবং তাঁর আইডি থেকে প্রতিনিয়ত সরকারবিরোধী প্রচারনা চালানো হয়।

জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার ও দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন, ইসলামপুরে আওয়ামীলীগের শক্তিশালী অবস্থানকে দুর্বল করে দেওয়া এবং এবং আগামী ইউপি নির্বাচনে ইসলামপুরের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ও আ’লীগ নেতা মোঃ শরিফের আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তায় ধ্বস নামানোর জন্য অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে বাটপার শাহেদ এসব নোংরা খেলায় মেতে উঠেছে।

এজন্যে টাউট শাহেদকে অবিলম্বে আাইনের আওতায় এনে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্যও তিনি সংশ্লিষ্ঠ কতৃপক্ষের প্রতি জোর দাবী জানান।

অন্যথায় দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে এবং এসব কিছুর দায় দায়িত্ব ঈদগাঁও থানার পক্ষপাতদুষ্ট ওসি মোঃ আবদুল হালিমকে বহন করতে হবে বলে হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করেন।

অস্ত্র ব্যবসায়ী, চাঁদাবাজ ও টাউট শাহেদের বিভ্রান্তমূলক অপপ্রচারে কাউকে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য উপস্থিত সাংবাদিক এবং সর্বস্তরের জনগনের প্রতি তিনি সর্নিবন্ধ অনুরোধ জানান।

সবশেষে তিনি ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত পূর্বক প্রকৃত দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আহবান জানান প্রশাসনের প্রতি।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি এবং ইসলামপুর ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারন সম্পাদক শাহজাহান চৌধুরী সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।

সংবাদ সম্মেলন চলাকালে ঈদগাঁও ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ প্যানেল চেয়ারম্যান সোহেল জাহান চৌধুরী, সাধারন সম্পাদক তারেক আজিজ, পোকখালী ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি মোজাহের আহমদ, সাধারন সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান রফিক আহমদ, জালালাবাদ ইউপি আ’লীগ সভাপতি সেলিম মোর্শেদ ফরাজী, সাধারন সম্পাদক মমতাজ আহমদ খান, ইসলামপুর ইউনিয়ন আ’লীগ নেতৃবৃন্দ এবং বৃহত্তর ঈদগাঁওর বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আগত আ’লীগ ও সহযোগী সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

Share This Post

আরও পড়ুন